Google search engine
Homeআন্তর্জাতিকপোষা প্রাণীদের নামে ৩০ কোটি টাকার সম্পত্তি লিখে দিলেন নারী

পোষা প্রাণীদের নামে ৩০ কোটি টাকার সম্পত্তি লিখে দিলেন নারী

চীনের এক বয়স্ক নারী তার সারা জীবনের সঞ্চয় ২ কোটি ইউয়ান বা প্রায় ২৮ লাখ মার্কিন ডলার মূল্যের সম্পত্তি নিজের সন্তানদের না দিয়ে পোষা বিড়াল ও কুকুরকে দান করে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। বাংলাদেশি মুদ্রায় এই সম্পত্তি প্রায় ৩০ কোটি ৫৬ লাখ টাকার সমান।হংকংভিত্তিক ইংরেজি সংবাদমাধ্যম সাউথ চায়না মর্নিং পোস্টের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, কয়েক বছর আগে চীনের বাণিজ্যনগরী সাংহাইয়ের ‘লিউ’ নামের ওই নারী তার সব সম্পদ তিন সন্তানের মধ্যে ভাগ করে দেওয়ার ইচ্ছা পোষণ করেন। কিন্তু পরে তিনি তার সেই সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করেন।সিদ্ধান্ত পরিবর্তনের কারণহ হলো, মাঝে লিউ একবার খুব অসুস্থ হয়ে পড়েন। কিন্তু তখন তার সন্তানদের কেউই তাকে দেখতে আসেননি। এমনকি, মায়ের কোনো খোঁজও নেননি তিন ছেলে-মেয়ে। জানা গেছে, তখন লিউয়ের পাশে ছিল শুধু তার কুকুর-বিড়ালগুলো।সম্প্রতি লিউ জানিয়েছেন, মৃত্যুর পর তার সব অর্থ যেন তার পোষা প্রাণীদের পেছনে ব্যয় করা হয়। একটি স্থানীয় পশু চিকিৎসাকেন্দ্রকে তার উইলের প্রশাসক হিসেবে নিয়োগ করা হয়েছে ও পশুদের যত্নের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।চীনের উইল রেজিস্ট্রেশন সেন্টারের সদর দপ্তরের কর্মকর্তা জেই কাই বলেন, লিউ সরাসরি তার পশুদের জন্য অর্থ রেখে যেতে চাইলেও পারবেন না। কারণ, চীনে এটি বৈধ নয়। অবশ্য, বিষয়টি সমাধানের কিছু উপায় আছে। লি এখন যা করেছেন, সেটিও একটি উপায়।ওই কর্মকর্তা বলেন, আমাদে কাছে পরামর্শ চাইলে আমরা লিউকে তার দলিলে সামান্য পরিবর্তন করতে বলতাম। আমাদের পরামর্শ থাকতো যে, আপনি ভরসা করেন এমন কারও নামে সম্পত্তি লিখে দিন, যিনি একই সঙ্গে আপনার পোষা প্রাণীদের যত্ন নেবেন।চীন উইল রেজিস্ট্রেশন সেন্টারের পূর্বাঞ্চলীয় শাখার আরেক কর্মী বলেছেন, চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে তারা লিউকে কোনো একটি পশু ক্লিনিকের কাছে সব অর্থ দিয়ে যাওয়ার ঝুঁকি বিষয়ে সতর্ক করেছিলেন। তাকে এটিও বলা হয়েছে, তার সন্তানদের আচরণ যদি পরিবর্তন হয়, তাহলে লিউ চাইলে যে কোনো সময় উইলে পরিবর্তন আনতে পারবেন।এদিকে, লিউয়ের এমন কাণ্ড চীনের সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ব্যাপক আলোচনা-সমালোচনার জন্ম দিয়েছে। অনেকেই তার এই ধারণার প্রতি সমর্থনও জানিয়েছেন। অনেকে আবার বিরোধিতাও করেছেন।ইনস্টাগ্রামে একজন ব্যবহারকারী লিখেছেন, এটাই ভালো করেছেন। ভবিষ্যতে আমার মেয়ে যদি আমার সঙ্গে খারাপ ব্যবহার করে, আমিও আমার বাড়ি অন্যদের নামে লিখে দেবো।গত বছরের ডিসেম্বরে সাংহাইয়ের একটি আদালতের অনুমতি নিয়ে এক ব্যক্তি তার মোট ৩.৩ মিলিয়ন ইউয়ান বা ৪ লাখ ৬৬ হাজার ডলারের সম্পদ তার আত্মীয়দের পরিবর্তে একজন ফল ব্যবসায়ীর নামে লিখে দিয়েছিলেন।

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -
Google search engine

Most Popular

Recent Comments